Home / Entertainment / এবার স্বামীর সাবেক স্ত্রীর নামে মামলা করবেন সালমা

এবার স্বামীর সাবেক স্ত্রীর নামে মামলা করবেন সালমা

এবার স্বামীর সাবেক স্ত্রীর নামে মামলা করবেন সালমা

 

মৌসুমী আক্তার সালমা দেশের জনপ্রিয় একজন কণ্ঠশিল্পী। ২০১১ সালে এই লালন কন্যা মৌসুমী আক্তার সালমার সঙ্গে শিবলী সাদিকের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল। এরপর ২০১৬ শিবলী সাদিকের সঙ্গে সালমার বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে।

গত বছর ৩১ ডিসেম্বর সালমা বিয়ে করেন সানাউল্লাহ নুরে সাগরের সঙ্গে। তিনি পেশায় একজন আইনজীবী। বিয়ের পর সাগর গত বছরের (২০১৮) সেপ্টেম্বরে লন্ডনে গেছেন।

নতুন খবর হচ্ছে, সালমার স্বামী সাগরের নামে নারী নির্যাতনের মামলা করেছেন তার ১ম স্ত্রী ও পরিবারের লোকজন।

প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া দ্বিতীয় বিয়ে করায় সাগরের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ ধারায় মামলা করেছেন প্রথম স্ত্রীর পরিবার। সাগরের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতনের অভিযোগে মামলা এবং গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছে। আর মামলাটি দায়ের করেছেন প্রথম স্ত্রীর মা (শাশুড়ি)। মামলায় সাগরের বাবা সাখাওয়াত হোসেন এবং মা সুরাইয়াকেও আসামি করা হয়েছে। কক্সবাজার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব‍্যুনাল-১ এই মামলা দায়ের করেছেন সাগরের প্রথম স্ত্রী পুষ্মীর মা দিলারা খানম।

মামলা নম্বর-২৫৪, ধারা-নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন, ২০০০ এর ১১ (গ), ১১(গ)/৩০ ধারা। এ মামলায় সালমার দ্বিতীয় স্বামী সানাউল্লাহ নূরে ওরফে সাগর ও তার বাবা-মা কে আসামি করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারের জন্য ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট থানায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা পাঠিয়েছেন কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ এ.এইচ.এম. মাহমুদুর রহমান।

বাদি তার আর্জিতে উল্লেখ করেন, ২০১৪ সালের ৩ জুন সানাউল্লাহ নূরী সাগরের সঙ্গে তার কন্যা তাসনিয়া মুনিয়াত (পুষ্মী)’র সঙ্গে ২০ লাখ টাকা কাবিনমূল্যে বিয়ে হয়। ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির ‘ল’ এর ছাত্রী তাসনিয়া মুনিয়াত (পুষ্মী) কে বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন ভাবে যৌতুকের জন্য সে চাপ দিতে থাকে এবং শারীরিক নির্যাতন করতে থাকে। তার মা দিলারা খানম তিন কিস্তিতে ১০ লাখ টাকা প্রদান করেন। সে টাকা দিয়ে সানাউল্লাহ নূরী সাগর লন্ডনে বারএট ল পড়ার জন্য ভর্তি হন।

এ বিষয়ে সালমা বিডি২৪লাইভকে জানান, ‘সাগরের আগের বিয়ের ডির্ভোস পেপার দেখেছি। তাদের ডির্ভোস হয়েছে গত বছরই। তাহলে আবার স্ত্রীর দাবি করে মামলা করে কি ভাবে? নারী নির্যাতন হয় কি করে? এটা আমি মনে করি আমাদের ইজেমটাকে নষ্ট করার জন্য এমন করছে তারা। যেহেতু আমার স্বামী দেশের বাহিরে। সে ফিরে আসলেই সমাধান ঘটবে। আর যেহেতু এমন খবরে আমার মানহানি হচ্ছে, আমি যতদ্রুত সম্ভব তাদের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করবো।’

সালমা আরও বলেন, ‘আমার শশুরের সাথে আমি কথা বলছি সব সময়। তারা বলছেন এমন বানোয়াট খবর। আমি স্থানীয় থানায় কথা বলেছি। ওসি সাহেব বলেছেন সাগরের নামে কোন গ্রেফতারি পরোয়ানা নেই। তাহলে কেন এই মিথ্যা হয়রানি করা হচ্ছে আমাদের।’

সাগর লন্ডন থেকে সালমার মাধ্যমে বিডি২৪লাইভকে বলেন, ‘আমি খবরটি দেখেই সামলাকে কল করেছি। আমরা দু’জন হাসাহাসি করেছি। যেহেতু আমি বাহিরে রয়েছি। কিছু দিনের মধ্যেই আমি ফিরবো। সব কিছু পরিস্কার হয়ে যাবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *